img

আমদানিকারকের স্টিকার ছাড়া বিদেশি ব্র্যান্ডের কসমেটিক্স ব্যবহার করায় বিউটিশিয়ান কানিজ আলমাস খানের প্রতিষ্ঠান পারসোনাকে আবারো জরিমানা করা হয়েছে। এবার প্রতিষ্ঠানটিকে মোট ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে পারসোনা বিউটি পার্লারকে ৩ লাখ ও পারসোনা এডামস পার্লারকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

বৃহস্পতিবার ধানমন্ডি-২৭ নম্বর শাখায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে তাদের এই জরিমানা করে।

এদিন দুপুরে ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অভিযান পরিচালনা করেন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার মণ্ডল ও আফরোজা রহমান।

অভিযানের বিষয়ে মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘এখানে অনেক কসমেটিক্স পেয়েছি যেগুলোর আমদানিকারকের কোনো স্টিকার নেই এবং কোন দেশের তৈরি তাও নেই। আমরা আগেও বার বার বলেছি তাদের যে পণ্য আমদানি করা, সেগুলোতে আমদানিকারকের স্টিকার থাকতে হবে। পারসোনার মতো একটি প্রতিষ্ঠানের প্রতি মানুষের অনেক বিশ্বাস রয়েছে। তাদের গতবছর একই অভিযোগে জরিমানা করা হয়েছিল।’

উল্লেখ্য, গত বছরের ১২ জুন বিদেশি পণ্য বলে রূপসজ্জায় নকল ও ভেজাল প্রসাধনী ব্যবহারের দায়ে পারসোনাকে চার লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে পারসোনা উইমেনকে আড়াই লাখ এবং পারসোনা ম্যানকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর


সর্বশেষ