img

 চার বছর পর কাতারে বসবে ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ তথা ফুটবল বিশ্বকাপের পরবর্তী আসর। এই বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য মধ্যপ্রাচ্যের ছোট্ট দেশটি প্রস্তুতি নিচ্ছে বেশ জোরেশোরেই। এরই অংশ হিসেবে ২০২২ বিশ্বকাপের উদ্বোধন ও ফাইনাল ম্যাচ যে স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে সেই লুসাই স্টেডিয়ামের নকশা উন্মোচন করেছে দেশটি।

মধ্যপ্রাচ্যে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ আয়োজনে কোনো কমতি রাখতে চায় না কাতার। আর এজন্য দেশটিতে সবচেয়ে আধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন স্টেডিয়াম স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। এসব স্টেডিয়ামের একেকটার নকশা দেখলে ভিরমি খেতে হবে। সর্বোচ্চ আধুনিকতা আর নান্দনিকতার ছোঁয়া থাকছে প্রায় সব স্টেডিয়ামেই। এসব স্টেডিয়ামের মধ্যে লুসাই স্টেডিয়াম বিশেষ মর্যাদা পেতে চলেছে। কারণ, এখানেই উঠবে বিশ্বকাপের পর্দা আর নামবেও এখানেই।

গত শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) কাতারের রাজধানী দোহায় হয়ে গেলো স্টেডিয়ামের নকশা উন্মোচনের জাঁকজমক অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানে লুসাই স্টেডিয়ামের নকশা উন্মোচন করেন আয়োজক দেশ কাতারের শাসক শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানিসহ দেশটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস।

২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজক কমিটির প্রধান হাসান আল-থাওয়াদি এই নকশা উন্মোচনকে ‘উল্লেখযোগ্য মাইলফলক’ হিসেবে অভিহিত করেন।

কাতার বিশ্বকাপের অষ্টম ও শেষ স্টেডিয়াম হিসেবে লুসাই স্টেডিয়ামের নকশা উন্মোচিত হলো। ব্রিটিশ স্থপতি ফস্টার অ্যান্ড পার্টনারস এর নকশা করা স্টেডিয়ামটির দর্শকধারণ ক্ষমতা ৮০ হাজার।এই স্টেডিয়ামটি দোহা থেকে ১৫ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত নতুন শহর লুসাইয়ে স্থাপন করা হচ্ছে।এটি নির্মাণে খরচ হবে ৪০ বিলিয়ন ইউরো। ২০২০ সালে এর নির্মাণ কাজ শেষ হবে জানিয়েছে আয়োজক কমিটি।

এই বিভাগের আরও খবর


সর্বশেষ