img

যুক্তরাষ্ট্রের ৪১তম প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ সিনিয়র মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৯৪।

আরেক সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ শুক্রবার রাতে তার বাবার মৃত্যুর কথা জানান।

গত কয়েকবছর ধরে তার শরীর ভালো যাচ্ছিল না। গত এপ্রিলে রক্তের সংক্রমণ নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

মাত্র সাত মাস আগেই তার স্ত্রী বারবারা বুশও মারা যান।

কে ছিলেন জর্জ বুশ সিনিয়র?

১৯৮৯ থেকে ১৯৯৩ পর্যন্ত মাত্র এক দফায় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। অবশ্য তার আগে দু দফায় তিনি প্রেসিডেন্ট রেগানের সময়ে ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন। কিন্তু ঐ চার বছরে আন্তর্জাতিক পরিসরে একাধিক ঐতিহাসিক ঘটনায় তাকে ব্যতিব্যস্ত থাকতে হয়েছিল।

পূর্ব ইউরোপে কম্যুনিজমের অবসান এবং ১৯৯০ সালে সাদ্দাম হোসেনের কুয়েত দখলের ঘটনা তার সময়েই ঘটে।

পূর্ব ইউরোপে কম্যুনিজমের অবসানের পর মি. বুশ বলেছিলেন, “নতুন এক সুবাতাস বইতে শুরু করেছে, মুক্তির গন্ধ নিয়ে গন্ধ নিয়ে এক নতুন পৃথিবীর জন্ম হচ্ছে।”

সাদ্দাম হোসেনের কুয়েত দখলের পর তাকে সেখান থেকে হঠাতে তিনিই আন্তর্জাতিক এক সামরিক কোয়ালিশন তৈরি করেন।

জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন তিনি, কিন্তু তার বিরুদ্ধে সমালোচনা শুরু হয় যে তিনি আমেরিকার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মন দিচ্ছেন না।

ফলে ১৯৯২ সালের নির্বাচনের তিনি বিল ক্লিনটনের কাছে পরাজিত হন।

টেক্সাসে জ্বালানি তেলের ব্যবসা শুরু করে মাত্র ৪০ বছর বয়সে মি. বুশ কোটিপতি বনে গিয়েছিলেন।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে তিনি মার্কিন নৌবাহিনীতে ছিলেন। ১৯৪৪ সালে জাপানিদের গুলিতে তার বিমান বিধ্বস্ত হয়েছিল।

রাজনীতিতে ঢোকেন ১৯৬৪ সালে।

(বিবিসি)

এই বিভাগের আরও খবর