img

সময়টাই এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের। যে কেউ রাতারাতি সেলিব্রেটি হয়ে যাচ্ছেন। অনেকেই আয় করে নিচ্ছেন এ মাধ্যম থেকে। হাতের মুঠোয় চলে আসছে ডলার। শুধু নিজের ফলোয়ার বাড়িয়ে রীতিমতো মোটা টাকা কামিয়ে নিচ্ছেন অনেকেই।

এবারের সফলতার গল্পটি এক কিশোরের। ছবিতে তাকে সুন্দরী মনে হলেও আসলে সে কিশোর। থাইল্যান্ডের এই কিশোর তার ইনস্টাগ্রামে মেয়ে সেজে ছবি পোস্ট করেছে। আর তা দেখেই মুগ্ধ যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীরা।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ১২ বছরের ওই কিশোরের নাম নেস। ছোটবেলা থেকেই তার শখ মেয়েদের মতো সাজা। ফ্যাং এনজিএ প্রদেশের বাসিন্দা নেসের এমন উদ্ভট খেয়াল স্বাভাবিকভাবেই পছন্দ করতো না পরিবারের সদস্যরা। তবে নেসকে তারা কখনো নিরুৎসাহিত করেননি। মাঝেমধ্যে উৎসাহও দিতেন।

দেখতে দেখতে ইনস্টাগ্রামে জনপ্রিয় হতে থাকে নেস। তার চোখ ধাঁধানো ছবি পোস্ট করে সবাইকে অবাক করে দেয়। নকল চোখের পাতা, চমকপ্রদ পরচুলা ইত্যাদির মাধ্যমে ছবিতে রূপসী হয়ে ওঠে সে। এ পর্যন্ত নেসের ফলোয়ার সংখ্যা ২ লাখ ৮০ হাজার।

ইনস্টাগ্রামের বদৌলতে রীতিমতো ধনী নেস। সে বাবা-মায়ের জন্য কিনে দিয়েছে আস্ত একটা বাড়ি! স্কুলে তার পেছনে সমালোচনা করে বন্ধুরা। কিন্তু নেস তাতে ঘাবড়ে যায় না। বরং বন্ধুদের কথায় পাত্তা না দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে তার কর্মকাণ্ড।

এই বিভাগের আরও খবর


সর্বশেষ