img

রেলওয়ের টিকিটের অব্যবস্থাপনা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সহজ ডটকমকে করা দুই লাখ টাকা জরিমানা আদায় স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

সহজের পক্ষে করা এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে রোববার (৩১ জুলাই) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

এর আগে গত ২০ জুলাই জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর টিকিট বুকিং অপারেটর সহজ ডটকমকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করে। এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ২৫ জুলাই রিট করে সহজ ডটকম।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী তানজিব উল আলম। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী কাজী এরশাদুল আলম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

আইনজীবী তানজিব উল আলম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, হাইকোর্ট জরিমানা আদায়ের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়েছেন। ফলে, সহজকে দুই লাখ টাকা দিতে হচ্ছে না।

এ ছাড়াও রুলে মহিউদ্দিন রনির অভিযোগের ভিত্তিতে সহজকে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর যে দুই লাখ টাকা প্রশাসনিক জরিমানা করেছে, তা কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

বাণিজ্যসচিব, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক, মহিউদ্দিন রনিসহ পাঁচ বিবাদীকে দুই সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কিনতে গিয়ে হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগ করেন মহিউদ্দিন রনি। এই অভিযোগ নিয়ে রেলের অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে গত ৭ জুলাই কমলাপুর রেল স্টেশনে ছয় দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন তিনি। পবিত্র ঈদুল আজহার আগে থেকে শুরু করে তার টানা আন্দোলন দেশজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করে।

এরপর ২৫ জুলাই রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে চার ঘণ্টা বৈঠক করেন মহিউদ্দিন। বৈঠকে দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে তিনি তার আন্দোলন স্থগিত করেন।

এই বিভাগের আরও খবর