Ads
img

কতৃপক্ষের উদাসীনতা এবং ঠিকাদারের সেচ্ছাচারিতায় ১৮০ দিনের কাজ ৪৮০ দিনেও শেষ না হওয়ায় জনভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রতিবাদে ও দ্রুততম সময়ের মধ্যে সড়ক নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করার দাবিতে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী স্থানীয় এলাকাবাসী। শুক্রবার দুপুরে সদর উপজেলার গৌরীচন্না ইউনিয়নের মনসাতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) অধীনে  গৌরীচন্না ইউনিয়নের পূর্ব লাকুরতলা থেকে রোডপাড়া বাজার সড়কের মনসাতলী অংশের দেড় কিলোসিটার সড়ক নির্মাণ কাজের জন্য এক কোটি ১৮ লাখ টাকা প্রাক্কলন ব্যায় ধরে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে কার্যাদেশ দেওয়া হয়। ২০১৯ সালের ১ মে এ কাজের কার্যাদেশ পায় মেসার্স মহিউদিন আহম্মেদ নামে পটুয়াখালী জেলার একটি  ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। যার স্বত্বাধিকারী পটুয়াখালী জেলা শহরের মুসলিম পাড়া এলাকার মো. মহিউদ্দিন আহমেদ।

স্থানীয় এলাকাবাসীর অভিযোগ, কার্যাদেশের সময়সূচী অনুযায়ী ১৮০ দিনের মধ্যে কাজ শেষ করার কথা থাকলেও দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় অতিবাহিত হওয়ার পরেও ঠিকাদারের গফিলতি ও স্বেচ্ছাচারিতার কারণে তা এখনও শেষ করা সম্ভব হয়নি। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে প্রায় অর্ধলক্ষাধিক মানুষ।

অন্যদিকে সড়কের কাজের ৪০ শতাংশ সম্পন্ন না করেই ইতোমধ্যে ওই ঠিকাদার ৬০ শতাংশ কাজ দেখিয়ে মোট বিলের অর্ধেক টাকা তুলে নিয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।স্থানীয় এলাকাবাসী আবুল বাসার মোল্লা জানান, নজিরবিহীন এ জনভোগান্তির কথা জানিয়ে স্থানীয় এলজিইডি কর্মকর্তাসহ প্রকল্প পরিচালকের সাথে যোগাযোগ করেও কোনো লাভ হয়নি। তিনি আরো বলেন, এ ধরনের স্বেচ্ছাচারিতা, গাফিলতি, জনভোগান্তি ও সরকারি অর্থ অপব্যাবহারের কারণে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিলের আইন রয়েছে। স্থানীয় এলাকাবাসীর বহু অভিযোগের পরেও প্রভাবশালী ওই ঠিকাদারের বিরুদ্ধে দাপ্তরিক কোনো ব্যবস্থা নেয়নি কতৃপক্ষ।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ওই ঠিকাদারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। 

এই বিভাগের আরও খবর