Ads
img

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে রাওনা ইউনিয়নে ভারি বৃষ্টি ও শীলা নদীর জোয়ারের পানিতে বিলপাড়ের প্রায় ৬০০ প্রন্তিক কৃষক পরিবার পান্দিবন্দি হয়ে চরম দূর্ভোগে পড়েছেন। এ অবস্থায় অনেক কৃষক বাড়িতে গরু রাখার জায়গা না থাকায় খোলা আকাশের নিচে বিলপাড়ের উচু মাটির ঢিভিতে গরু রাখছেন। গতকাল সোমবার স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুল আলম এলাকা ঘুরে অসহায় কৃষক পরিবারগুলোর খোঁজ খবর নিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাম্প্রতিক ভারি বৃষ্টিপাত ও উপজেলার আভ্যন্তরীন শিলা নদীর জোয়ারের পানিতে রাওনা ইউনিয়নের ছত্রাইল বিল, বরমা বিল, রাওনা বিলের পানি বৃদ্ধি বৃদ্ধি পায় ও আশপাশের নিচু এলাকা প্লাবিত হয়। চলাচলের রাস্তা তলিয়ে যায়। এতে মলাগান্দা, বয়রা কুড়ি, ধোপাঘাট, চংবিরই, লাওতৈল, খারুয়া বড়াই ও খারুয়া মুকুন্দ গ্রামে বিলপাড়ের নিচু এলাকায় বসবাসরত প্রায় ৬০০ হত-দরিদ্র, শ্রমজীবি ও প্রান্তিক কৃষক পরিবার পানিবন্দি হয়ে দূর্ভোগে পড়েছেন। ঘরের চারদিকে ও বাড়ির উঠানে পানি জমায় অনেক কৃষক বাধ্য হয়ে গরু রাখছেন খোলা আকাশের নিচে বিলপাড়ের মাটির ঢিভিতে। বাড়ির রাস্তা তলিয়ে যাওয়ায় মলাগান্দা গ্রামের কৃষক হান্নান, সোহরাব, সাহাব উদ্দিন, আকরাম ঈদে গরু বিক্রি করতে পারেননি।ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুল আলম বলেন, পানিবন্দি পরিবারগুলোর মধ্যে ভিজিএফ চাল বিতরণ করা হয়েছে। আমাদের প্রিয় নেতা সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেলের নির্দেশে এলাকা ঘুরে তালিকা তৈরি করে উপজেলা দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অফিসে জমা দিয়েছি।

এই বিভাগের আরও খবর